মঙ্গলবার ২৩ জানুয়ারী ২০১৮ || সময়- ১:২১ pm
চট্টগ্রামে মোবাইল চোর চক্রের পাঁচজনসহ গ্রেপ্তার ৬


ইনফরমেশন ওয়াল্ড বন্দরনগরী  নিউজ ডেক্স
চট্টগ্রাম:-----টার্গেট তাদের মোবাইল দোকান, তাই আগে থেকেই অবস্থান নেয় মার্কেটে; আর মার্কেট বন্ধ হলে শাটার কেটে ঢুকে পড়ে দোকানে। ১০ থেকে ১২ মিনিটের মধ্যে দোকান থেকে চুরি করে সটকে পড়ে।
চট্টগ্রামে মোবাইল চোর চক্রের পাঁচ সদস্যসহ ছয়জনকে গ্রেপ্তারের পর বুধবার এ তথ্য জানিয়েছে পুলিশ।
চক্রটি গত ৪ জানুয়ারি রাতে খুলশী থানার টাউন সেন্টার কনকর্ড মার্কেটের দুইটি মোবাইল দোকান থেকে চুরি করে বিপুল পরিমাণ মোবাইল সেট। খুলশী থানা পুলিশের টানা অভিযানে ৬৭টি মোবাইল সেট উদ্ধার করে।
এ ঘটনায় পুলিশ চোর চক্রের পাঁচ সদস্য আব্দুল্লাহ আল মামুন (২৮), ওসমান গণি (৪০), মো. রাসেল ওরফে জুয়েল ওরফে রানা সর্দার (২৫), মো. জাবেদ (২৮) ও মো. পারভেজ (২০) ও চোরাই মোবাইল কেনার অভিযোগে মো. আইযূব (৪৮) নামে একজনসহ ছয়জনকে গ্রেপ্তার করে।
বুধবার খুলশী থানায় সংবাদ সম্মেলন করে নগর পুলিশের উপ-কমিশনার (উত্তর) আব্দুর ওয়ারিশ জানান, গত ৪ জানুয়ারি টাউন সেন্টারের বর্ষপূর্তি উপলক্ষে মার্কেটটিতে মেলার আয়োজন করা হয়। দিনব্যাপী এ মেলায় গ্রেপ্তাররা দর্শনার্থী হিসেবে মার্কেটে প্রবেশ করে।
রাতে মেলা শেষে মার্কেট বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর সিটিজিশপ ডটকম ও মেট্রিক্স কমিউনিকেশন নামে দুইটি দোকান থেকে মোবাইল ল্যাপটপ ও নগদ টাকা চুরি করে।
খুলশী থানা পুলিশের একটি দল টানা অভিযান চালিয়ে চোর চক্রের পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করে জানিয়ে তিনি বলেন, পরে তাদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী পাঁচলাইশ থানার শুলকবহর আলমাদানি রোডের লেদু মেম্বারের গলির শাহী ম্যানসন নামে একটি বাড়ির তৃতীয় তলার বাসা থেকে ৬৭টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়।
শাহী ম্যানসনের বাসাটি গ্রেপ্তার আইয়ূবের জানিয়ে পুলিশ কর্মকর্তা ওয়ারিশ বলেন, তিনি চোরাই মোবাইল ফোনগুলো চোর চক্রটি থেকে কিনে নেন।
নগর পুলিশের সহকারী কমিশনার (বায়েজিদ বোস্তামী জোন) সোহেল রানা বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, ৪ জানুয়ারি দর্শনার্থী সেজে গ্রেপ্তাররা মার্কেটে ঢোকে।
রাতে মেলা শেষ হয়ে যাওয়ার পর মামুন মোবাইল দোকানের ডিসপ্লে বোর্ডের আড়ালে লুকিয়ে ছিল এবং সবাই চলে যাওয়ার পর গভীর রাতে দোকানের শার্টার কেটে দুইটি দোকানে প্রবেশ করে মোবাইল ফোন চুরি করে।
এই ‍চুরিতে সবমিলিয়ে তাদের ১০ থেকে ১২ মিনিট পর্যন্ত সময় লেগেছে বলে জিজ্ঞাসাবাদে পাওয়ার কথা জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।
খুলশী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মহিবুর রহমান জানান, সিটিজিশিপ ডটকম থেকে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ৭৫টি মোবাইল সেট, একটি ল্যাপটপ ও নগদ ৯৮ হাজার ১০০ টাকা এবং মেট্রিক্স কমিউনিকেশন থেকে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ২৭টি মোবাইল সেট ও নগদ এক লাখ ২০ হাজার টাকা চুরি হয়েছে বলে প্রতিষ্ঠান দুইটির পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে।
এর মধ্যে ৬৭টি মোবাইল সেট উদ্ধার করা হয়েছে। বাকিগুলো উদ্ধারের কাজ চলছে।
গ্রেপ্তাররা পেশাদার মোবাইল চোর চক্রের সদস্য জানিয়ে সহকারী পুলিশ কমিশনার সোহেল রানা বলেন, তাদের দলে ১২ থেকে ১৩ জন আছে বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছে।
“এর মধ্যে মামুন, রাসেল ও জাবেদ ২০১৬ সালে নগরীর সানমার ওশান সিটিতে মোবাইল ফোনের দোকান চুরির সাথে জড়িত ছিল। ওই সময় তারা গ্রেপ্তার হওয়ার পর এক বছরের বেশি সময় কারাগারে ছিল; মাসখানেক 
আগে জামিনে ছাড়া পায়।”
তথ্য সূত্র---বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম