বুধবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৭ || সময়- ৩:১৭ pm
বাড়ছে বাঘ

ইনফরমেশন ওয়াল্ড পরিবেশ  নিউজ ডেক্স
চট্টগ্রাম:-----ব্যাপক আওয়াজে বলা হয়ে থাকে বিশ্বে দিন দিন কমছে বাঘের সংখ্যা। কিন্তু পাল্টেছে সে পরিস্থিতি, হুমকির মুখে থাকা এ প্রাণীটি এখন বিশ্বে বাড়ছে। সম্প্রতি গবেষকরা এমনই বক্তব্য তুলে ধরে দিয়েছেন বিস্তারিত পরিসংখ্যান। তারা জানিয়েছেন, অবিশ্বাস্যভাবে গত একশ’ বছরের মধ্যে এই প্রথম প্রাকৃতিকভাবেই বাঘের সংখ্যা বেড়েছে। যদিও বাঘ রক্ষায় মানুষের বিভিন্ন সচেতনতামূলক কার্যক্রম বিশ্বব্যাপী পরিচালিত হয়ে আসছে।
এখন বিশ্বে তিন হাজার ৮শ’ ৯০টি বাঘ রয়েছে। যা ২০১০ সালে ছিল ৩ হাজার দুইশ’টি। গত ছয় বছরে এটি প্রাকৃতিক নিয়মে বেড়েছে। তবে এই বছরগুলোতে বন ধ্বংসকারীদের থাবাও কম ছিল না। এছাড়া ছিল চোরাকারবারীদের দ্বারা বাঘ হত্যা, বাঘের চামড়া পাচারের নেশা; সেই সঙ্গে মৃত বাঘের দেহের বিভিন্ন অংশ বিক্রি। এতো সব প্রতিবন্ধকতার পরও বাঘের বৃদ্ধিকে ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন বিশেষজ্ঞরা।
ওয়ার্ল্ড ওয়াইল্ডলাইফ এবং গ্লোবাল টাইগার ফোরামের গবেষণায় উঠে এসেছে, ভারতেই রয়েছে ২ হাজার ২২৬টি বাঘ; যা পৃথিবীর অর্ধেক।
বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এটি আনন্দের বিষয় যে বিশ্বে কমবেশি বাঘ বাড়ছে। যা পরিবেশ ও বনের ভারসাম্য রক্ষায় বেশ কাজে দেবে। দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার ভূমি হলো বাঘেদের জন্য সবচেয়ে নিরাপদ। তাই বিভিন্ন প্রাণী অধিকার সংস্থা থেকে দক্ষিণ এশিয়ার বাঘ সংরক্ষণের ওপর জোর দেওয়া হয়ে থাকে। এর মধ্যে বাংলাদেশকে আগামী ২০২২ সালের মধ্যে প্রাকৃতিক বৈচিত্র্যতা রক্ষার জন্য হলেও বাঘের সংখ্যা বৃদ্ধি করতে হবে।
২০১৪ সালের হিসেবে অনুযায়ী, বাংলাদেশে বাঘ আছে ১০৬টি, ভুটানে ১০৩, চীনে ৭টির বেশি, ভারতে দুই হাজার ২২৬টি, ইন্দোনেশিয়ায় ৩৭১টি, মালয়েশিয়ায় ২৫০, নেপাল ১৯৮, রাশিয়া ৪৩৩, থাইল্যান্ড ১৮৯, ভিয়েতনাম ৫, কম্বোডিয়ায় বর্তমানে ০ এবং অন্যান্য ০২টি। এছাড়া মায়ানমার সরকার ২০১০ সালে গণনা করেছে ৮৫টি বাঘ রয়েছে তাদের দেশে।
তথ্য সূত্র :-বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম