শনিবার ১৮ নভেম্বর ২০১৭ || সময়- ৩:১৭ pm
বিদেশি পোর্টফলিওর বিনিয়োগ ১৬ হাজার কোটি টাকা

ইনফরমেশন ওয়াল্ড  অর্থনীতি নিউজ ডেক্স 
চট্টগ্রাম:-- ---দেশের পুঁজিবাজারে বর্তমানে বিদেশি পোর্টফোলিওর সম্পূর্ণ বিনিয়োগ ১৬ হাজার কোটি টাকার বেশি। এই বিনিয়োগের বেশির ভাগই হয়েছে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই)। পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ডিমিউচ্যুয়ালাইজড পরবর্তী পুঁজিবাজারে বিদেশি পোর্টফোলিওর বিনিয়োগকারীদের আস্থা বেড়েছে। পাশাপাশি অতীতের যেকোনো সময়ের তুলনায় পিই রেশিও ভালো রয়েছে। এছাড়াও শেয়ারের দাম কম থাকায় বিদেশি বিনিয়োগকারীরা বাজারে ফিরেছেন।
এ বিষয় বিএসইসির চেয়ারম্যান অধ্যাপক খায়রুল হোসেন বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে দুই দফা ধসের পর আইনি কাঠামোগুলোতে অনেক পরিবর্তন করা হয়েছে। এখন কেউ কারসাজি করে পার পাবে না। এ কারণে এখন প্রাথমিক গণপ্রস্তাব (আইপিও) এবং প্লেসমেন্ট বাণিজ্য বন্ধ হয়ে গেছে। তবে একীভূতকরণের নামে কারসাজি করছে কোম্পানিগুলো। তাদের জন্য আইন তৈরি করা হচ্ছে।
এসবের পাশাপাশি বিএসইসি ও দুই স্টক এক্সচেঞ্জকে আন্তর্জাতিকমানের করা হয়েছে। ফলে বিদেশিরা বাংলাদেশের পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ করতে আগ্রহী হচ্ছেন বলে মনে করেন তিনি।
অধ্যাপক খায়রুল হোসেন বলেন, নিয়ম অনুসারে ডিসেম্বরের মধ্যে স্টক এক্সচেঞ্জকে ২৫ শতাংশ শেয়ার কৌশলগত বিনিয়োগকারীদের কাছে বিক্রি করতে হবে। ডিএসই’র ২৫ শতাংশ মালিকানা কিনতে এরই মধ্যে বিদেশিদের প্রতিনিধিরা দলে দলে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।
ডিএসইর সর্বশেষ তথ্য মতে, এই বিদেশি পোর্টফোলিওর ইনভেস্টররা চলতি বছরের প্রথম ১০ মাসে লেনদেন করেছেন ৭ হাজার ১৩৩ কোটি ৫৮ লাখ ৪ হাজার ৩৪৯ টাকার শেয়ার। এর মধ্যে নিট বিনিয়োগ হয়েছে ৮০০ কোটি ৪৭ লাখ ৫৫ হাজার ৯৫২ টাকা। এই সময়ে তারা ৩ হাজার ১৬৬ কোটি ৫৫ লাখ ২৪ হাজার ১৯৯ টাকার শেয়ার বিক্রি করেছেন। আর কিনেছেন ৩ হাজার ৯৬৭ কোটি ০২লাখ ৮০ হাজার ১৫০ টাকার শেয়ার।
এর আগের বছর একই সময়ে ৬ হাজার ১৩০ কোটি ৫৪ লাখ ৯২ হাজার ৭ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। যার মধ্যে নিট বিনিয়োগ ৮৩ কোটি ৭০ লাখ ৩৫ হাজার ৬৫৩ টাকা। এর মধ্যে তারা শেয়ার বিক্রি করেছে ৩ হাজার ০২৩ কোটি ৪২ লাখ ২৮ হাজার ১৭৭ টাকার। আর শেয়ার ক্রয় করেছেন ৩ হাজার ১০৭ কোটি ১২ লাখ ৬৩ হাজার ৮৩০ টাকা।
২০১৫ সালের জানুয়ারি থেকে অক্টোবর পর্যন্ত ১০ মাসের তুলনায় ২০১৬ সালের দশ মাসে লেনদেনে বেড়েছে ১৬ দশমিক ৩৬ শতাংশ। নিট বিনিয়োগ বেড়েছে ৮৫৬ দশমিক ৩২ শতাংশ। শেয়ার বিক্রির চেয়ে কেনার পরিমাণ বেড়েছে ২৭ দশমিক ৬৮ শতাংশ।
এছাড়াও ডিএসই ও সিএসই কর্তৃপক্ষ বিভিন্ন দেশের স্টক এক্সচেঞ্জ ও কোম্পানিগুলোতে বিনিয়োগ বাড়াতে কাজ করছে বলেও জানা গেছে।
তথ্য সূত্র :-বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম