সোমবার ২০ নভেম্বর ২০১৭ || সময়- ৮:২৮ pm
সাভারে তরুণীকে দলবেঁধে ধর্ষণ: যুবলীগ নেতার নাম বাদ দিয়ে মামলা

ইনফরমেশন ওয়াল্ড অপরাধ নিউজ ডেক্স
চট্টগ্রাম:-----সাভারে এক যুবলীগ নেতা ও তার ভাইসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে এক তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠলেও ওই দুই জনের নাম বাদ দিয়ে মামলা হয়েছে।

শুক্রবার ভোরে ওই তরুণী বাদী হয়ে সাভার মডেল থানায় মামলাটি করেন বলে সাভার মডেল থানার ওসি মহসিনুল কাদির জানান।

মামলায় যুবলীগ নেতার খালাত ভাই হামিদ মণ্ডল, চাচাত ভাই তানভির মণ্ডল ও কালিয়াকৈর এলাকার পারভেজকে আসামি করা হয়েছে।

পুলিশ যুবলীগ নেতা মহসিন মণ্ডল ও তার ছোট ভাই জুয়েল মণ্ডলের নাম বাদ দিয়ে মামলা নথিভুক্ত করেছে বলে অভিযোগ করেছেন ওই তরুণীর ভাই।

মহসিন মণ্ডল সাভার থানা যুবলীগের সহ সভাপতি। তার বড় ভাই সেলিম মণ্ডল সভাপতি। ঢাকা জেলা পরিষদের সদস্য সেলিম হজে যাওয়ায় মহসিন ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

মামলার বরাত দিয়ে ওই তরুণীর মামাত ভাই বলেন, বৃহস্পতিবার বিকালে সাভারের বিরুলিয়া ইউনিয়নের বাগ্নিবাড়ির ভোমকা এলাকায় বন্ধুর সঙ্গে বেড়াত গিয়ে ধর্ষণের শিকার হন ওই তরুণী। বন্ধুকে মারধর করে তাড়িয়ে দিয়ে তাকে চোখ বেঁধে জঙ্গলে নিয়ে যুবলীগ নেতা মহসিনসহ পাঁচজন ধর্ষণ করেন।

তিনি বলেন, “আমরা অভিযোগে ঘটনার সঙ্গে জড়িত পাঁচজনের নামই দিতে চেয়েছিলাম। কিন্তু পুলিশ ও যুবলীগ নেতাদের হুমকিতে মহসিন ও জুয়েলের নাম বাদ দিতে হয়েছে।

“যুবলীগ নেতার নাম বাদ দেয়ার পরও তারা আমাদেরকে অনবরত হুমকি দিচ্ছে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য। মেয়েটির বাবা অটো চালিয়ে সংসার চালায়। তার ছোট একটি ভাই রয়েছে। পরিবারটি এখন আতঙ্কের মধ্যে রয়েছে।”

মামলা থেকে যুবলীগ নেতা ও তার ভাইকে বাদ দেওয়া বিষয়ে ওসি বলেন, “গভীর রাতে ওই মেয়েকে জিজ্ঞাসাবাদে সে মহসিন ও জুয়েলের নাম বলেনি। সে জানিয়েছে, ‘এক মোটরসাইকেলে তিনজন এসেছিল, তারাই ধর্ষণ করেছে’।”

মহসিন ও জুয়েলকে আসামি না করার জন্য মেয়েটির পরিবারকে হুমকি দেওয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, “আমাদের কাছে এখনও হুমকির বিষয়ে কেউ অভিযোগ করেনি। তাছাড়া ওই মেয়ে যদি ভয়ে তাদের নাম এজাহারে না দিয়ে থাকে তাহলে আদালতে আবেদন করলে আদালতের নির্দেশে মামলায় নাম অন্তর্ভুক্ত করে দিব।”

হুমকির বিষয়ে মহসিন মণ্ডলের মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

এদিকে মামলার আসামি তানভির মণ্ডলকে (২১) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

রাতেই  তানভিরকে বিরুলিয়ার আক্রান এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্য দুই আসামিকেও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে বলে জানান ওসি মহসিনুল
তথ্য সূত্র—বিডি নিউজ