বুধবার ২৪ জানুয়ারী ২০১৮ || সময়- ৪:২৬ pm
গাজীপুরের শ্রীপুরে মাদ্রাসা ছাত্রকে ‘যৌন নিযাতন’, শিক্ষক গ্রেপ্তার

ইনফরমেশন ওয়াল্ড অপরাধ নিউজ ডেক্স
চট্টগ্রাম:----গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলায় আট বছর বয়সী এক মাদ্রাসা ছাত্রকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে তার শিক্ষককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
শ্রীপুর থানার এসআই রাজিব কুমার সাহা জানান, বুধবার রাতে শিক্ষক মো. ফোরকান আহমেদকে (২৪) গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
“বৃহস্পতিবার দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।”
ফোরকান আহমেদ শ্রীপুরের আবদার এলাকায় মোহাম্মদিয়া আরাবিয়া নুরানী হাফিজিয়া মাদ্রাসা ও এতিম খানার শিক্ষক এবং কুমিল্লার বরুরার সারাফতি এলাকার মো. শফিউল্লাহর ছেলে।
এসআই রাজিব জানান, ওই শিক্ষার্থী মাদ্রাসার হোস্টেলেই থাকত। তার বাড়ি ময়মনসিংহে। শ্রীপুরে তার বাবা-মা ভাড়া বাড়িতে থাকেন।
“গত ১৫ সেপ্টেম্বর বিকালে মাদ্রাসার একটি কক্ষে পড়ানো শেষে অন্যদের ছুটি দিলেও ওই ছাত্রকে কক্ষে অপেক্ষা করতে বলেন ফোরকান। পরে নির্জন কক্ষে দরজা বন্ধ তাকে যৗন নির্যাতন করেন।”
ওসি জানান, পরে ওই ছাত্রকে বাড়ি পাঠিয়ে দেন এবং নিজে আত্মগোপন করেন। পরদিন তার মা ওই শিক্ষার্থীকে মাদ্রাসায় যেতে বললে শিশুটি মাকে জড়িয়ে ধরে কান্না করতে থাকে এবং সে ওই মাদ্রাসায় আর কখনও যাবে না বলে মাকে জানায়। মা কারণ জানতে চাইলে ছেলে ঘটনাটি বলে।
এ ঘটনায় বুধবার তার বাবা বাদী হয়ে শ্রীপুর থানায় ওই শিক্ষককে আসামি করে মামলা করেছেন। ওই রাতেই মাদ্রাসা এলাকা থেকে ফোরকানকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।
শিশুটিকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে ওসি জানান।
শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক প্রণয় ভূষণ দাস বলেন, ভিক্টিমের পরীক্ষার প্রতিবেদন পাওয়ার আগে ওই ঘটনার কোনো তথ্য বলা যাবে না।খবর বিডি নিউজের সৌজন্যে ।